স্পেন-আর্জেন্টিনার ম্যাচে স্টিক দিয়ে মারামারি

টোকিও অলিম্পিকের হকি ইভেন্টের স্পেন-আর্জেন্টিনা ম্যাচে হকি স্টিক দিয়ে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়ের মাথায় আঘাত করেছেন আর্জেন্টিনার এক খেলোয়াড়।

ম্যাচটি শেষ হয়েছে ১-১ গোলে। সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। খেলা চলার সময়ই স্পেনের দাভিদ আলেগ্রে মাঠে শুয়ে পড়েছিলেন পেশিতে টান লাগার কারণে। এ সময় আর্জেন্টিনার মাতিয়াস রে আলেগ্রের শুশ্রূষায় এগিয়ে আসেন। এ সময় পর্যন্ত দুই দলের খেলোয়াড়েরাই ছিলেন শান্ত।

বিপত্তি বাঁধে আর্জেন্টিনার এক খেলোয়াড়ের আচরণেই।

লুকাস রসি নামের সেই হকি খেলোয়াড় কথা নেই, বার্তা নেই ছুটে এসে মাটিতে শুয়ে থাকা আলেগ্রের মাথার পেছনে হকি স্টিক দিয়ে আঘাত করে বসেন। স্বাভাবিকভাবেই স্প্যানিশ খেলোয়াড়েরা ব্যাপারটায় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। স্পেনের ডেলাস রীতিমতো গলা ধরেই রসিকে সরিয়ে দেন। আলেগ্রেও কম যাননি। তিনিও লাফিয়ে উঠে তেড়ে যান রসির দিকে। অবস্থার প্রেক্ষিতে আম্পায়ার ম্যাচটা তাড়াতাড়ি শেষ করে দিতেও বাধ্য হয়েছেন। ফলে ১-১ ড্র মেনেই মাঠ ছাড়েন দুই দলের খেলোয়াড়েরা। মাঠ ছাড়ার সময় টানেলেও ঘটনার রেশ অব্যাহত ছিল।

স্পেনের আলেগ্রে স্পেনের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়। ২০০৪ সাল থেকে তিনি অলিম্পিকে খেলছেন। এথেন্সে ১৭ বছর আগে প্রথম স্পেনের হয়ে খেলার পর তিনি ২০০৮ সালে বেইজিং, ২০১২ সালে লন্ডন আর ২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকে খেলেছেন। বেইজিংয়ে রুপা জিতেছিল স্পেন। আর্জেন্টিনা পুরুষ হকির বর্তমান চ্যাম্পিয়ন দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *